“স্টপ” নিয়ে কিছু কথা

ফটোগ্রাফী শুরু করার সময় অনলাইনে যত টিউটোরিয়াল পড়তাম সব জায়গাতেই প্রথমেই যেই সমস্যাটায় পড়তাম সেটা হল “স্টপ” শব্দটা নিয়ে। সবখানেই বলে এক স্টপ, দুই স্টপ লাইট বাড়াও, কয়েকস্টপ আইএসও বাড়াও/কমাও – এফস্টপ বাড়াও/কমাও। তো কথা হল এই স্টপ জিনিস টা কি?

 প্রথমে এফ স্টপ নিয়ে শুরু করা যাক। এফ স্টপ ভ্যালু হল অ্যাপারচারের ইনভার্স। এর মান শুরু হয় নিচের মত করে

১, ১.৪, ২, ২.৮, ৪, ৫.৬, ৮, ১১, ১৬, ২২, ৩২

এফ স্টপ যত বাড়ে, তার মানে হল অ্যাপারচার তত কমে। ফাস্ট লেন্স বলতে বোঝায় যার অ্যাপারচার যত বেশী ( অর্থাৎ যার এফ স্টপ ভ্যালু যত কম )। বুঝতেই পারছেন, ফাস্ট লেন্সেরর জন্য প্রয়োজন ভালো অপটিকস এবং জটিল রকমের ইলেক্ট্রো-মেকানিক্যাল প্রসেসিং। এইজন্যই ফাস্ট লেন্স গুলোর দাম এত বেশী। এখনকার সব ক্যামেরায় এফ স্টপ ভ্যালু ১/৩ স্টেপিংয়ে বাড়ানো কমানো যায়।

আলোর সাথে স্টপ ভ্যালুর সম্পর্ক: এফ ভ্যালু এক স্টপ বাড়ানো মানে ক্যামেরায় যে পরিমান আলো ঢুকছে তার পরিমান ১/২ কমে যাওয়া। দুই স্টপ বাড়ানো মানে ১/(২*২) = ১/৪ ভাগ কমে যাওয়া। ঠিক একই ভাবে এফ ভ্যালু এক স্টপ কমানো মানে আলোর পরিমান দিগুন বেড়ে যাওয়া 🙂 সহজ হিসেব

আরেকটু জটিল হিসেবে যাওয়া যাক এখন। কিভাবে এক্সপোজারের সাথে এফ স্টপ ভ্যালু এবং শাটার স্পিডের সম্পর্ক নিয়ন্ত্রিত হয় সেটা দেখি আমরা। ধরুন আপনি দিনের বেলায় ছবি তুলছেন যেখানে নিচের হিসেবে আপনি সঠিক এক্সপোজার পাচ্ছেন

শাটার ১ / ২০০, এফ স্টপ ২.৮

এখন আপনি দেখলেন যে আপনার ১ / ২০০ শাটার স্পিডে কাজ হচ্ছে না। আরো ফাস্ট শাটার স্পিড দরকার। তখন আপনি শাটার স্পিড এক স্টপ বাড়িয়ে দিলেন, ফলে সেটা হল ১/৪০০ (এক স্টপ বাড়ানো = ১/(২০০*২) = ১/৪০০) । শাটার স্পিড এক স্টপ বাড়ানোর ফলে কি হলে বলুন তো? আলোর পরিমান আগে যা ঢুকত তার চেয়ে অর্ধেক ঢোকা শুরু হল। এটাকে ঠিক করার জন্য আপনি কি করবেন এখন? এফ স্টপ ভ্যালু ঠিক এক স্টপ কমিয়ে দিন। এফ স্টপ ভ্যালু আগে ছিল ২.৮, এক স্টপ কমালে সেটা হবে ২ (মনে আছে তো উপরের এফ স্টপ স্কেল?) ফলে এখন আপনার ক্যামেরার সেটিংস হল নিচের মত

শাটার ১ / ৪০০, এফ স্টপ ২

এখনও কিন্তু আপনি ঠিক আগের মতই সঠিক এক্সপোজার পাবেন। ঠিক একই ভাবে নিচের প্রতিটি সেটিংস ই আপনাকে সঠিক এক্সপোজার দিবে এই ছবির জন্য

শাটার ১ / ১০০, এফ স্টপ ৪

শাটার ১ / ৮০০, এফ স্টপ ১.৪

শাটার ১ / ৫০, এফ স্টপ ৮

এখন ধরুন আপনার লেন্সের ম্যাক্সিমাম অ্যাপারচার হল এফ স্টপ ১.৪। কিন্তু আপনার শাটার স্পিড ১/৮০০ এর চেয়ে বেশি করা দরকার এই দৃশ্যের ফটো তোলার জন্য। কিন্তু আপনি তো লেন্সের এফ স্টপ ভ্যালু আর কমাতে পারবেন না। তখন কি করবেন? এই সময় প্রয়োজন আইএসও ভ্যালুর। শাটার স্পিড ১/৮০০ থেকে এক স্টপ বাড়িয়ে দিন (১/১৬০০), এফ স্টপ ভ্যালু ১.৪ এই রাখুন, এবং এক্সপোজার ঠিক রাখতে আইএসও আগে যা ছিল তার দিগুন করে দিন ( অর্থাৎ এক স্টপ বাড়িয়ে দিন) 🙂

ফটোগ্রাফীর এই বেসিক জিনিস গুলো বুঝলে আপনি দেখবেন প্রয়োজনের সময় পাগলের মত ট্রায়াল অ্যান্ড এররের মাধ্যমে বা আন্দাজে এক্সপোজার ঠিক না করে আপনি জেনে শুনে বুঝে সব সেটিংস ঠিক করতে পারছেন। এর ফলে আপনার ফটোগ্রাফী আগের চেয়ে অনেক সহজ হবে আশাকরি।

সামনে আবার অন্য কোন টপিকস নিয়ে লিখব 🙂

(কৃতজ্ঞতা স্বীকার : হাসিন হায়দার)

Advertisements

2 Comments

  1. দারুণ রে…আমি আমার ক্যামেরাগুলি ফেলে দিয়েছি সেই কবে!!! তোর লেখা পরে মনে হল একটা ক্লিক ক্লিক থাকলে খারাপ না, ভালই হতো…নিশ্চয়ই এই টিপসগুলি ভালো ফটোগ্রাফার হবার জন্য বিশেষ সহায়ক হবে…তোর সুন্দর ভবিষ্যৎ কামনা করি…ভাল থাকিস…

    Reply

  2. অয়ন ভাই , আমি তো আমার ক্যামেরার সাথে কিছুই মিলাতে পারছি না 😦 আমার টা নিকন D90 .. ১৮-১০৫ VR lance ….

    Reply

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s